Movie News

“ছপাক” নিয়ে দীপিকা পাডুকোন

সোমবার সকালে টুইটারে দীপিকা পাডুকোন একটা পোস্ট করেন।ছবিটি যে কেউ দেখেই আঁতকে উঠবেন কেননা ছবিতে দীপিকার মুখ অ্যাসিডে ঝলসে গেছে।পরে জানা যায় এটি “ছপাক” সিনেমায় তার লুক। ছবিটির ক্যাপশনে তিনি লেখেন, ‘এইটা একটা চরিত্র, যা আমার সঙ্গে সারাজীবন থাকবে’।

আজ থেকে শুরু হলো সিনেমার শুটিং।মুক্তি পাবে ১০জানুয়ারি ২০২০ সালে। সিনেমাটি অ্যাসিড আক্রমনের শিকার হওয়া লক্ষী আগারোয়ালের ঘটনা নিয়ে তৈরি করছেন মেঘনা গুলজার।এই ছবির প্রস্তাব নিয়ে গতবছরের শেষ দিকে তিনি দীপিকার সঙ্গে কথা বলেন।সবকিছু শুনে দীপিকা রাজি হয়ে যান।শুধু তাই নয়,সিনেমার প্রযোজনা করার ব্যাপারেও তিনি আগ্রহ প্রকাশ করেন।







দীপিকা বলেন,গল্পটা যখন শুনেছিলাম আমি স্তব্ধ হয়ে যাই।ঘটনাটা আমাকে এতটা স্পর্শ করেছে।অ্যাসিড আক্রমণ এক ভয়ংকর সহিংসতা।এর বিরুদ্ধে সবারই প্রতিবাদ করা উচিৎ।আর যারা এর শিকার হয়,আমাদের উচিৎ এদের পাশে দাঁড়ানো,তাদের মনে শক্তি ও সাহস জোগানো।তিনি আরও বলেন,এই ধরনের গল্পগুলো সিনেমার মাধ্যমে সবাইকে জানানো উচিৎ। পরিচালক মেঘনা গুলজার বলেন, ‘আমার বারবার মনে হয়েছিল আমি যেমনটা চাইছি দীপিকা তাতে রাজি হবে না।কিন্তু এক সাহসি অ্যাসিড আক্রান্ত সাহসী নারীর শক্তির গল্প শুনে মুহূর্তেই দীপিকা রাজি হয়ে যায়। ২০০৫ সাল।বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় লক্ষী আগারওয়ালকে অ্যাসিড ছুড়ে মারা হয়।এরপর বেচেঁ থাকার জন্য শুরু হয় তার জীবনসংগ্রাম।তিনি জয়ী ও হয়েছেন।তার অভিজ্ঞতা নিয়ে তিনি কয়েকটি পর্বের একটি টিভি অনুষ্ঠানও তৈরি করেন।




২০১৬সালে তিনি লন্ডন ফ্যাশন উইকে হেঁটেছিলেন।যারা এই সহিংসতার শিকার তাদের কাছে তিনি একজন সাহসী নারী। ২০১৪সালে মার্কিন ষ্টেট ডিপার্টমেন্ট থেকে তাকে আন্তজার্তিক নারী সাহসি পুরস্কার’ দেয়া হয়। জানা গেছে, ছপাক সিনেমায় দীপিকা সঙ্গে আরও আছে রাজকুমার রাও।এই সময়ের তরুণ মেধাবী অভিনেতা তিনি।গতবছর তার ‘নিউটন’ সিনেমাটা ভারত থেকে অস্কারে যায়।দীপিকার পাশে দাড়িয়ে পাল্লা দিয়ে তিনিও ভালো কাজ দিবে আশা করা যাচ্ছে।




You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *